Breaking News

মান্না কিভাবে আমাদের ছেড়ে গেছে এ বছরই জানবে সবাই : স্ত্রী শেলী

বাংলাদেশের শূন্য দশক-পরবর্তী চলচ্চিত্রের সময়টা এককভাবে নিজের আয়ত্তে রেখেছিলেন চিত্রনায়ক মান্না। সেই মান্না আকস্মিকভাবে ‘নাই’ হয়ে গেলেন। মান্নার চলে যাওয়া এখন পর্যন্ত স্বাভাবিকভাবে নিতে

পারেনি লক্ষকোটি ভক্ত। এখনো মান্নার জন্য চোখের জল আসে অজস্র অনুরাগীর। আগামীকাল ১৭ ফেব্রুয়ারি, চিত্রনায়ক মান্নার প্রয়াণের আজ ১৩ বছর।

২০০৮ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে প্রাণ ত্যাগ করে সৈয়দ মোহাম্মদ আসলাম তালুকদার ওরফে মান্না। কিন্তু মান্নার ওই চলে যাওয়াকে কোনোভাবেই স্বাভাবিক মানতে রাজি নন মান্নার স্ত্রী

শেলী মান্না।

তার দাবি মান্নাকে সঠিক সময়ে সঠিক চিকিৎসা দেওয়া হয়নি। কোনো প্রস্তুতি না রেখেই মান্নাকে হার্টের ইনজেকশন দেওয়া হয়েছে, যেটা উন্নত বিশ্বের চিকিৎসাশাস্ত্রে ঘটে না। শেলি জানান, এ বছরই মান্নার শুনানি

হবে, আর মানুষ জানবে মান্না এভাবে চলে গেছে।

আরও পড়ুন : চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি ও পারভেজ মাহমুদ অপুর ডিভোর্স মিডিয়াপাড়ার সবচেয়ে আলোচিত সংবাদ। এ নিয়ে মাহি ভক্তদের কৌতূহলের শেষ নেই। মাহি কোথায় আছেন, কী করছেন জানতে চান তারা।

মাহিয়া মাহি বর্তমানে চাঁপাইনবাবগঞ্জ দাদার বাড়িতে আছেন। সেখানে ফুফাতো বোনসহ অন্যান্য কাজিনদের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন বলে জানান এই নায়িকা।

মাহি ভেরিফায়েড ফেইসবুক পেজে একটি ভিডিও প্রকাশ করে ক্যাপশনে লিখেছেন: ‘কোনো কাজ নাই ভাই, যাকে পাই তাই ধরে ধরে মেকআপ করে যাই।’ ভিডিওতে দেখা যায় মাহি ফুফাতো বোনকে মেকআপ

করে দিচ্ছেন।

এদিকে মাহির ডিভোর্স নিয়ে এখনও ধুম্রজাল কাটেনি। অপু জানান, এখনো বিষয়টির সমাধান হয়নি। দুই পরিবার আবারো একসঙ্গে বসবেন। তিনি নিশ্চিত করেন,

ডিভোর্সের বিষয়ে আইনগত প্রক্রিয়া শুরু হবে আগামী কিছুদিনের মধ্য। এখানে টাকা-পয়সাসহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আছে। আমরা চেষ্টা করেছিলাম সংসার টিকিয়ে রাখতে কিন্তু সম্ভব হলো না।

কিন্তু কেউ কাউকে দোষ দিতে চাই না। ভাগ্যে এটাই হয়তো লেখা ছিল। আর কিছু বলতে চাইনা এই মুহূর্তে’- যোগ করেন অপু।উল্লেখ্য যে, বিবাহ বিচ্ছেদের কথা ছড়িয়ে পড়লে অপু বলেছিলেন ‘এখনও ডিভোর্স হয়নি।

তবে আইনি প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।’ এদিকে মাহি বলেছিলেন ‘বিচ্ছেদ দুই বছর আগে হয়েছে।’ এরপর সর্বশেষ অপু জানান, ‘ডিভোর্স হয়েছে।’

২০১৬ সালের ২৫ মে মাহমুদ পারভেজ অপুর সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন মাহি। দুই পরিবারের সম্মতিতেই তাদের বিয়ে হয়। গত ২৫ মে তাদের পঞ্চম বিয়েবার্ষিকীর আগমুহূর্তে মাহি জানান- তারা আর একসঙ্গে

থাকছেন না!

Check Also

খাবারের অভাবে, নিজের ৩ মাসের সন্তানকে বিক্রি করলেন এক মা

পৃথিবীর সৃষ্টির পর থেকে কেউ বেশি খেয়ে মরছেন, আবার কেউ না খেয়ে মরছে না। সেই …